1. admin@gaibandhapratidin.com : Milon Sarkar : Milon Sarkar
রংপুরের পীরগঞ্জে খাস জমিতে আত্রাই বিল খনন কালে আবাদি জমি দখল করার অভিযোগ • গাইবান্ধা প্রতিদিন
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ১২:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধায় লাগাতার রোজাদার ব্যক্তিদের ইফতার দিয়ে রের্কড সৃষ্টি করলো জেলা ছাত্রলীগ। গাইবান্ধায় BHRC’র আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত গাইবান্ধায় প্রধানমন্ত্রীকে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির স্মারকলিপি প্রদান। ৫ কোটির সহায়তা প্রিয়াঙ্কার। গত একমাসে সারাদেশে ৩৯৭ টি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে। গতকাল নিরব ও মিথিলা অভিনীত ‘অমানুষ’ ছবির ফার্স্ট লুক প্রকাশ হয়েছে। গোবিন্দগঞ্জে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মলীগ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চঞ্চলের আয়োজনে ইফতার ও রান্না করা খাবার বিতরণ গাইবান্ধা সদর উপজেলার আস্থার প্রতীক উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ সারোয়ার কবির টাকার অভাবে মেডিকেলে ভর্তি হতে পারছেন না গোবিন্দ🤦‍♀️

রংপুরের পীরগঞ্জে খাস জমিতে আত্রাই বিল খনন কালে আবাদি জমি দখল করার অভিযোগ

মনিরুজ্জামান খান,রংপুর
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১
  • ১২৪ বার পঠিত

রংপুর রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার মিঠিপুর ইউনিয়নের আত্রাই বিল সরকারি(খাসজমি)

লিজকৃত কবুলিয়াত নামা মূলে চিরস্থায়ী বন্দোবস্তো গ্রহন করে প্রায় ৪০ বছর ধরে জমি ভোগদখল আবাদ করে জীবন জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলো গ্রামের প্রায় ৩৫টি পরিবারের কৃষক। তবে পরিত্যক্ত খাসজমি থাকলেও পুকুর খনন কালে কবুলিয়াতকৃত আবাদি জমি এক্সাভেটর (ভেকু) দিয়ে খনন করে দখল করছে বলে অভিযোগ করেন সুবিধাভোগী মানুষ ।

এ বিষয়ে পীরগঞ্জ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা কৃষিবিদ আমিনুল ইসলাম সাথে কথা হলে তিনি বলেন। সরকারের খাসকৃত জমিতে জলাশয় সংস্কার মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্প বাবদ ১৯ লাখ ৬৭ হাজার টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। বর্তমানে বরাদ্দের কাজ চলছে সারে ৭ বিঘা-২.৪৭ একর। পরবর্তীতে খাস জমি আরও খনন করা হবে। এখানে গরীব মৎস্যজীবি লোকেরা জীবিকা নির্বাহ করবে বলে জানান ।

আত্রাই বিল খনন কালে গত ২৩ ফেব্রয়ারী ২০২১ ইং পীরগঞ্জে আর,ডি মৎস্য প্রকল্পের ঠিকাদার হঠাৎ করে আত্রাই বিল আবাদি জমি যার দাগ নম্বর নুতন ৩০৫৯,৩০৫৩, ৩০২০,৩০২২ সহ একের পর এক কোনো এক অজ্ঞাত ও রহস্যজনক কারনে পেশিশক্তিতে দখল করে পুকুর খনন করছে বলে মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়।
পরে প্রতিকার চেয়ে ২৪ ফেব্রয়ারী বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেন সুবিধাভোগী মানুষের পক্ষে শাহীন মিয়া,
পরবর্তীতে বিরোধপূর্ণ জমি-যার জে,এল নং-২২৯ সিএস খতিয়ান নং-৫১৭ সাবেক দাগ নং-১৭২৬ যাহার বুজরত খতিয়ান নং- ১৭৭২ ডি,পি খতিয়ান নং-১৯২ আর এস খতিয়ান নং- ১৯২ নুতন দাগ নং-৩০৫৭,জমি ১.১৮ একরের মধ্যে ১.০০ একর “।

মামলার বাদীর অভিযোগ,
প্রতিপক্ষ বিভিন্ন কৌশলে তাদের কবুলিয়াত ও পত্তন কৃত জমি দখলের চেষ্টা অব্যাহত রাখলে কোন উপায় না পেয়ে আবেদ আলী আদালতে হাজির হয়ে প্রতিপক্ষ সাইফুল ইসলামসহ ১১ জনের নাম উল্লেখ করে ( ১ মার্চ ২০২১) অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফৌজদারী কার্যবিধি ১৪৪ ধারায়/মিছ পিটিশন ২১৮/২১ যাহার স্মারক নং- ২৮৬/১ (২) মামলা সংক্রান্ত জমির উপর নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন করেন।

আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত ১৮ মে মধ্যে সংশ্লিষ্ট ULAO তদন্ত প্রতিবেদন নির্দেশ দেন,সেই সাথে শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য পীরগঞ্জ থানার ও,সি কেও নির্দেশ প্রদান করেন।

ভোগদখলকৃত জমি জে,এল নং-২২৯ যাহার বুজরত খতিয়ান নং-১৮৫৮ ডি,পি খতিয়ান নং-১০৩৩ আর,এস খতিয়ান নং-১০৩৩ সাবেক দাগ নং-১৭২৬ নুতন দাগ নং-৩০৫৯,জমি ৩.১০ একরের মধ্যে ১.০০ একর তন্মধ্যে. ৩০ একর। আবারো আরেক ব্যক্তি মোঃ মমদেল হোসেন আদালতে হাজির হয়ে প্রতিপক্ষ সাইফুল ইসলামসহ ১২ জনের নাম উল্লেখ করে (১০ মার্চ ২০২১) ১৪৪ ধারায় মিছ পিটিশন নং ১৯৪/২১,স্মারক নং- ৩২৬/১(২) মামলা সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা জারির আবেদন করেন।

আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত ১ জুন তারিখের মধ্যে সংশ্লিষ্ট ULAO তদন্ত প্রতিবেদনের জন্য নির্দেশ প্রদান করে আদালত। সুবিধাভোগী তারা মিয়া ১২ জনের নাম উল্লেখ করে বিজ্ঞ জুডিসিয়াল আদালতে আরও একটি মামলা করেন।

আদালতের মিছ পিটিশন ও থানার অভিযোগ সূত্রে প্রকাশ, দু-দফা প্রাথমিক ভাবে প্রতিবেদনের দেয়ার আগেই তা কর্নপাত না করে ওই আত্রাই বিল খাস অংশ খননের পাশাপাশি সুবিধাভোগীদের কবুলিয়াত ও পত্তন নেয়া ইরি বরো ধান লাগানো আবাদি জমি একটি প্রভাবশালী চক্র দখলে নিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা।

এদিকে প্রতিপক্ষ সাইফুল ইসলাম সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি

বাদীর ছেলে আইয়ুব আলী,ভুক্তভোগী শাহীন মিয়া জানান, ঘটনার পর একাধিক বার পুলিশের সহযোগিতা চেয়েও কোন প্রতিকার পাননি তারা।
তবে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই ইসমাইল হোসেন বলেন,বাদি ও বিবাদীকে মিমাংসা জন্য থানায় ডেকে কথা বলা হয়েছে। তবে কেউ শান্তি শৃঙ্খলার বেঘাত ঘটানোর চেষ্টা করলে আইনের আওতায় আনা হবে।

স্থানীয়রা বলছে বিল খনন নিয়ে দুইপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজমান। এটাকে কেন্দ্র করে যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে পারে। তাই আদালতের মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত পুলিশ প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছেন এলাকাবাসী।√#

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর...

© ২০২০-২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | গাইবান্ধা প্রতিদিন

Theme Customized BY LatestNews