1. shahriarltd@gmail.com : GaibandhaPratidin :
  2. maydul@gaibandhapratidin.com : Maydul :
  3. info@gaibandhapratidin.com : Milon Sarkar : Milon Sarkar
  4. raju@gaibandhapratidin.com : Raju Sarker : Raju Sarker
  5. srridoy121@gmail.com : Samsur Rahman Ridoy : Samsur Rahman Ridoy
মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি ইউনিয়নের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন জাতীয় পাটির কেন্দ্রীয় সদস্য আব্দুর রাজ্জাক মন্ডল চলে গেলেন শিক্ষানুরাগী আমির আলী তালুকদার সুন্দরগঞ্জে ১৩০ মন্ডপে শামীম হায়দার পাটোয়ারী এম,পি’র আর্থিক সহায়তা প্রদান ফুলছড়ি বালাসী রোডে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ৪ গোবিন্দগঞ্জে মাননীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলা চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে বিভিন্ন পূজা মন্ডপে অর্থিক অনুদান প্রদান বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়ন শাখার উদ্যোগে দুর্গাপূজা পরিদর্শন সামাজিক অবক্ষয় রোধে গুণীজন, কঠোর আইন ও সচেতনতায় বন্ধ হবে ধর্ষণ গোবিন্দগঞ্জে মেয়র আতাউর রহমান সরকার এর বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শণ ও আর্থিক অনুদান প্রদান প্রবীন আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হক মৃত্যুতে এর নিরাপদ যানবাহন চাই এর চেয়ারম্যান এর শোক প্রকাশ। আগামী ১৩নং শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদে নৌকার মাঝি হতে চান এ.কে.এম কামরুল হুদা (রাজু)

ফুলছড়িতে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত ভাঙ্গনে বিলীন ৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

মোঃ হাবিবুর রহমান স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৯ জুলাই, ২০২০
  • ৩০১

ফুলছড়ি উপজেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। বাড়িঘরে এখনও হাটু থেকে কোমর পানি থাকায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন চরাঞ্চলের মানুষগুলো। দ্বিতীয় দফায় বন্যায় নদী ভাঙনে ৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয় নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে। এছাড়া হুমকির মুখে পড়েছে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। রোববার (১৯ জুলাই) সরেজমিন ফুলছড়ি উপজেলার উড়িয়া ও ফজলুপুর ইউনিয়নের চরগুলো ঘুরে পানিবন্দি মানুষের দুর্ভোগ দেখা গেছে। এসব চরের মানুষ গবাদি পশু নিয়ে বিপাকে পড়েছেন।

সেখানে শুকনা খাবার সরবরাহ করা জরুরী হয়ে পড়েছে। এদিকে নদী ভাঙ্গন অব্যাহত থাকায় চরম হুমকির সম্মুখীন হয়ে পড়েছে এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের জিগাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়, এরেন্ডাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ ভবন, জিগাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, এরেন্ডাবাড়ী পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র, দুইটি জামে মসজিদ, জিগাবাড়ী বাজার নুরানী হাফিজিয়া মাদ্রাসা, জিগাবাড়ী ঈদগাঁ মাঠ, একটি বিএস কোয়ার্টার, ৩টি মোবাইল টাওয়ার ও এরেন্ডাবাড়ী বাজার। নদী ভাঙ্গন এলাকা থেকে মাত্র কয়েক গজ দূরেই এসব প্রতিষ্ঠান অবস্থান করছে।

তাছাড়া জিগাবাড়ী বাজারে অবস্থিত ২৫০টি দোকানের ব্যবসায়ীরা চরম উৎকণ্ঠায় দিনাতিপাত করছে। ইতিমধ্যে জিগাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি ভবন ও বাজার এলাকার জামে মসজিদটি নদী ভাঙ্গনের শিকার হলে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে। ফুলছড়ি উপজেলা শিক্ষা অফিসার কফিল উদ্দিন জানান, নদী ভাঙনের কবলে পড়ায় চর কাবিলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঝানঝাইড় কমিউনিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও পশ্চিম কালাসোনা বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে। হুমকির মুখে পড়েছে জিগাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও চৌমোহন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. শহিদুজ্জামান বলেন,

এ বছর বন্যায় এ পর্যন্ত উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের ১ হাজার ১৬টি পরিবার বন্যা ও নদী ভাঙনের শিকার হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। উপজেলায় ১১০ মেট্টিকটন চাল, নগদ ৫ লক্ষ টাকা, ৯৫০ প্যাকেট শুকনা খাবার, শিশু খাদ্য বাবদ ৫০ হাজার টাকা এবং গো-খাদ্য বাবদ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৫০ মেট্টিকটন চাল, ২ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা ও ১০৫ প্যাকেট শুকনা খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

এ জাতীয় আরো খবর...

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | গাইবান্ধা প্রতিদিন

Theme Customized BY LatestNews